Sunday, September 27, 2020
Home খেলাধুলো এই দিনেই ইতিহাস গড়েছিল ইস্টবেঙ্গল!‌ আসিয়ান কাপ জয়ের কেটে গেল ১৭ বছর...

এই দিনেই ইতিহাস গড়েছিল ইস্টবেঙ্গল!‌ আসিয়ান কাপ জয়ের কেটে গেল ১৭ বছর East Bengal made history on this day! 17 years have passed since winning the ASEAN Cup | sports


এই দিনেই ইতিহাস গড়েছিল ইস্টবেঙ্গল!‌ আসিয়ান কাপ জয়ের কেটে গেল ১৭ বছর

আসিয়ান জিতে কলকাতা বিমানবন্দরে ফিরে লাল-হলুদ সমর্থকদের উচ্ছ্বাসে ভেসে যাওয়ার স্মৃতি টাটকা ভাইচুং ভুটিয়া, মাইক ওকোরো, সুলে মুসা থেকে এম সুরেশ, মহেশ গাউলিদের।

#কলকাতা : এক ফ্রেমে আলভিটো, ডগলাস, ষষ্ঠী, চন্দন, সন্দীপরা। লাল হলুদ ব‍্যাকড্রপ। পাশে রাখা ইতিহাসের আসিয়ান কাপ। ক্লাব তাঁবুর টেবিলে বিশাল আকারের ধবধবে পাইনাপেল কেক।

১৭ বছর আগে ২০০৩-র এই দিনটাতে জাকার্তার মাটিতে ইতিহাসে জায়গা করে নিয়েছিল ইস্টবেঙ্গল। তারপর থেকে দেখতে দেখতে অতিক্রান্ত সতেরো বছর। কিন্তু ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের স্মৃতিতে আজও টাটকা ২০০৩-র আসিয়ান কাপ। জুলাই মাসে ফুটবল দেবতা উজাড় করে দিয়েছে কলকাতা ময়দানকে। মোহনবাগানের ঐতিহাসিক শিল্ড জয় থেকে ইস্টবেঙ্গলের আসিয়ান সেরা হওয়া! সবটাই তো এই জুলাইতে।

দেশ জুড়ে কোভিড আবহ। তাই ক্লাবের পক্ষ থেকে এবার সেই ভাবে কোন অনুষ্ঠান করা হয়নি। শহরের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা আসিয়ান জয়ী দলের ৫ সদস্য ফুটবলার সকাল সকাল চলে এসেছিলেন ক্লাবে। কেক কাটা, নিজেদের মধ্যে গল্প-আড্ডায় সতেরো বছর আগের সেই দিনটায় ফিরে যাওয়া। ২০০৩-র ২৬ জুলাই ঢুকে পড়েছিল ময়দানের লেসলি ক্লডিয়াস সরণির লাল-হলুদ ক্লাব টেন্টে। ডগলাস, আলভিটোরা বলছিলেন,”ক্যারিয়ারের স্মরণীয়তম মুহূর্ত। জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত ভোলা যাবে না জাকার্তায় কাপ জয়ের মুহূর্তটাকে।” আজকের দিনেই আসিয়ান ফাইনালে বেকতারো সসানা-কে ৩-১ গোলে হারিয়ে কাপ উঠেছিল সুভাষ ভৌমিকের দলের হাতে। চন্দন দাস, সন্দীপ নন্দীরা ধন্যবাদ দিচ্ছিলেন কোচ সুভাষ ভৌমিক ও দলের সঙ্গে থাকা লক্ষ লক্ষ সদস্য সমর্থকদের। ষষ্ঠী দুলে বলছিলেন, ফাইনালে তারকা ফুটবলার চাইম‍্যানের সঙ্গে তার টানটান ডুয়েলের গল্প।


আসিয়ান জিতে কলকাতা বিমানবন্দরে ফিরে লাল-হলুদ সমর্থকদের উচ্ছ্বাসে ভেসে যাওয়ার স্মৃতি টাটকা ভাইচুং ভুটিয়া, মাইক ওকোরো, সুলে মুসা থেকে এম সুরেশ, মহেশ গাউলিদের। সুভাষ ভৌমিকের সুপার সাব কুলুথুঙ্গন আর নেই। কিন্তু ২০০৩-এর আসিয়ান জয়ী ইস্টবেঙ্গল দলের সদস্যরা বিশ্বের যে প্রান্তেই থাকুন, এই দিনটা ভোলার নয়। লক্ষ লক্ষ লাল-হলুদ হৃদয়ে মশাল জ্বললে জেগে থাকবে ২০০৩-র আসিয়ান স্মৃতিও।

PARADIP GHOSH



Published by:
Uddalak Bhattacharya


First published:
July 26, 2020, 5:07 PM IST

পুরো খবর পড়ুন





Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

করোনার উত্পাতে পড়াশোনা বন্ধ! মঙ্গলসূত্র বন্ধক রেখে সন্তানদের জন্য টিভি কিনল মা

নিজস্ব প্রতিবেদন- সন্তানদের পড়াশোনা বন্ধ হতে বসেছিল। তাই তিনি এমন সিদ্ধান্ত নিলেন। নিজের মঙ্গলসূত্র বন্ধক রেখে সন্তানদের জন্য টিভি কিনলেন এক মা। এমনিতেই...

ভারতে করোনা রুখতে ভ্যাকসিনেই ভরসা স্বাস্থ্যমন্ত্রকের ! দেখুন কি বলছেন চিকিৎসকেরা | vaccine can prevent corona in India pb | national

রাশিফল বছরটা ভালোই কাটবে ৷ কাজে একটু চাপ আসতে পারে, কিন্তু বছরটা কাটবে ভালোই ৷ পরিবারে অতিথি সমাগম হতে পারে ৷ এই বছরে নিজেকে...

করোনা বিধি না মানায় বিপদ, কম বয়সীদের মধ্যে সংক্রমণের হার বেশি: WHO| WHO says young generation is more affected by coronavirus | national

রাশিফল বছরটা ভালোই কাটবে ৷ কাজে একটু চাপ আসতে পারে, কিন্তু বছরটা কাটবে ভালোই ৷ পরিবারে অতিথি সমাগম হতে পারে ৷ এই বছরে নিজেকে...

Recent Comments

%d bloggers like this: